ভেনেজুয়েলার কাছে হোঁচট খেয়ে শঙ্কাতেই আর্জেন্টিনা


তলানির দল ভেনেজুয়েলার কাছে হোঁচট খেয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপে সরাসরি জায়গা করে  নেওয়া শঙ্কাতেই আছে আর্জেন্টিনা।

নিজেদের মাঠে বাংলাদেশ সময় বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকালে ১-১ গোলে ড্র করে হোর্হে সাম্পাওলির দল।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইপর্বের আর দুই রাউন্ড বাকি থাকতে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছে আর্জেন্টিনা। আগের ম্যাচে চিলি হেরে না গেলে ষষ্ঠ স্থানে নেমে যেত দুই বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

দক্ষিণ আমেরিকা থেকে প্রথম চারটি দল সরাসরি খেলবে রাশিয়া বিশ্বকাপ। পঞ্চম স্থানের দলকে বিশ্বকাপের টিকিট পেতে প্লে-অফ খেলতে হবে ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের শীর্ষ দলের সঙ্গে।

বুয়েনেস আইরেসের স্তাদিও মনুমেন্তালে শুরু থেকেই গোলের জন্য মরিয়া ছিল আর্জেন্টিনা। নবম মিনিটে ডি-বক্সে ঢুকে মাউরো ইকার্দিকে বল বাড়িয়েছিলেন আনহেল দি মারিয়া। তবে ইকার্দি শট নেওয়ার আগেই বল বিপদমুক্ত করে ডিফেন্ডাররা।

১৭তম মিনিটে পাওলো দিবালার কাটব্যাক থেকে এভার বানেগার শট ঠেকান গোলরক্ষক ফারিনেস। ২২তম মিনিটে বা দিক থেকে দি মারিয়ার নিচু ক্রসে দিবালা পা ছুঁইয়েছিলেন। তবে দারুণ দক্ষতায় কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান ১৯ বছর বয়সী গোলরক্ষক।

২৫তম মিনিটে চোটের কারণে মাঠ থেকে উঠে যেতে হয় দি মারিয়াকে। বদলি হিসেবে আকুনাকে নামান কোচ সাম্পাওলি।

৩২তম মিনিটে ডি-বক্সের ভেতর থেকে দিবালার শট লক্ষ্যে থাকেনি। বিরতির আগে লিওনেল মেসির শট ডানে ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে আবারও রক্ষাকর্তা ফারিনেস।

দ্বিতীয়ার্ধের ষষ্ঠ মিনিটে খেলার ধারার বিপরীতে এগিয়ে যায় অতিথিরা। পাল্টা আক্রমণে বল পেয়ে সামনে এগিয়ে গোলরক্ষক সের্হিও রোমেরোর মাথার উপর দিয়ে বল জালে পাঠান জন মুরিইয়ো।

তিন মিনিটের মধ্যে সমতা ফেরায় আর্জেন্টিনা। ডি-বক্সের বাঁ দিক থেকে আকুনার ক্রস বিপদমুক্ত করতে গিয়ে নিজেদের জালে পাঠিয়ে দেন রলফ ফেলচার।

যোগ করা সময়ে বার্সেলোনার তারকা ফরোয়ার্ড মেসির বাড়ানো বল থেকে হাভিয়ের পাস্তোরের শট ঠেকিয়ে স্বাগতিকদের আরেকবার হতাশ করেন ফারিনেস।

আর্জেন্টিনা নিজেদের মাঠে পরের ম্যাচ খেলবে পয়েন্ট তালিকায় এগিয়ে থাকা পেরুর বিপক্ষে। বাছাই পর্বে লিমায় দুই দলের প্রথম ম্যাচ ২-২ গোলে ড্র হয়েছিল।

মেসিদের শেষ ম্যাচ একুয়েডরের মাঠে। বুয়েনস আইরেসে এই দলের কাছে হেরেই বাছাইপর্ব শুরু করেছিল আর্জেন্টিনা।

এর আগের ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করে ব্রাজিল-কলম্বিয়া। বাছাইপর্ব পেরিয়ে সবার আগে বিশ্বকাপে ওঠা ব্রাজিলের পয়েন্ট ১৬ ম্যাচে ৩৭। ২৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে কলম্বিয়া।

দিনের শেষ ম্যাচে প্যারাগুয়েকে ২-১ গোলে হারিয়ে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে উরুগুয়ে।

দিনের প্রথম ম্যাচে একুয়েডরকে ২-১ গোলে হারানো পেরু আর্জেন্টিনার সমান ২৪ পয়েন্ট নিয়ে বেশি গোল করার সুবাদে চতুর্থ স্থানে আছে।

পয়েন্ট টেবিলের নিচের দিকের দল বলিভিয়ার মাঠে ১-০ গোলে হেরে গেছে চিলি। ১৬ ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আছে টানা দুবারের কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়নরা।

আশা টিকে আছে ২১ পয়েন্ট পাওয়া প্যারাগুয়ে ও ২০ পয়েন্ট পাওয়া একুয়েডরেরও।

Facebook Comments