নানা অভিযোগের জবাব দিতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি শাকিব খান


নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা শাকিব খান। ঈদে তার নবাব ও রাজনীতি সিনেমাটি দারুণ ব্যবসা সফল হয়েছে। তবে সাম্প্রতিক কালে ‘যৌথ প্রযোজনা’র ছবি, শিল্পী সমিতিতে থেকে নিষেধাজ্ঞা ও নায়িকাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে নানা কারণেও তিনি বেশ বিতর্কিত হয়ে উঠেছিলেন।

এসব বিষয় নিয়েই মঙ্গলবার (৪ জুন) দুপুরে গুলশানের একটি রেস্তোরায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন ‘নবাব’ খ্যাত শাকিব খান। সকল অভিযোগের উত্তর তিনি এসময় যেমন দিয়েছেন, তেমনি কথা বলেছেন সিনেমা, ইন্ডাস্ট্রির ভবিষ্যত নিয়ে।

সম্প্রতি শাকিব খানের বিরুদ্ধে একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সরাসরি সম্প্রচারে গিয়ে বাংলা সিনেমার নায়িকাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে কথা বলায় ফেসবুকে একটি দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়ে প্রতিবাদ জানান জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া অভিনেত্রী নিপুণ। সেখানে নিপুণ উল্টো শাকিবের শিক্ষা নিয়েই প্রশ্ন তোলেন। শাকিবকে তিনি তাঁর অতীতের অনেক কথাও মনে করিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন।

নিপুণের সেই ঝাঁজালো ফেসবুক পোস্ট নিয়ে জানতে চাইলে ‘নবাব’খ্যাত এই জনপ্রিয় তারকা জানন, নিপুণের এই স্ট্যাটাস নিয়ে তাঁর কোনো মাথাব্যথা নেই। এমনকি এসব বিষয় নিয়ে মাথা ঘামানোর সময়ও নেই তাঁর। শাকিব বলেন, ‘আমার মনে হয় তিনি (নিপুণ) সেই অনুষ্ঠান ঠিকমতো না দেখেই আমার সম্পর্কে মনগড়া কথা লিখেছেন।’

শাকিবের মন্তব্য,‘আলোচনায় আসার জন্যই আমার সমালোচনা করেছেন তিনি। পড়াশোনা করে তিনি কিছুই করতে পারেননি। আর আমি তো ছবি নিয়ে সারা বিশ্বে ঘুরছি। যোগ্যতা না থাকলে কি পারতাম?’

শিল্পী সমিতির নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে শাকিব বলেন ‘১৬টি সংগঠন আমাকে নিষিদ্ধ করছে, তাতে আমার কিছু যায় আসে না। এতে যেমন আমার ছবি মুক্তিতেও কেনো সমস্যা হবে না, তেমনি আমার ছবি দেখা থেকেও দর্শককে ঠেকাতে পারবে না।’

সম্প্রতি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ভোট গণনার সময় রাতে তার উপর হামলা ও পরে থানায় অভিযোগপত্র দায়ের নিয়ে শাকিব খান বলেন,‘নরমালি আমি হুমকি-ধামকি পেয়ে থাকি। ফিজিক্যালি হ্যাসেল করার চেষ্টা থাকে। মাঝে মাঝে মৃত্যুর হুমকিও চলে আসে। কিন্তু দেখার মতো দৃষ্টান্তমূলক কোনো শাস্তি আমরা দেখছি না। এগুলো নিয়ে আমি ভাবছি না। আমার বিশ্বাস আইনশৃংঙ্খলা বাহিনী, সরকার আমার পাশে থাকবেন। আমি চাই, সরকার আমার নিরপত্তা দেবেন।’

বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘নবাব’ ও ‘বস টু’ নিয়ে বিতর্ক আর ছবি দুটি আটকে দেওয়ার চেষ্টার ব্যাপারে শাকিব বলেন, ‘দেশের মানুষ উচ্ছ্বাস নিয়ে ছবি দেখছেন, প্রশংসা করছেন। এটাই তো বড় জবাব। আমার তো আলাদা করে তাদের জবাব দেওয়ার কিছু নেই।’

সংবাদ সম্মেলনের পুরো সময়টাতে শাকিব খান ছিলেন হাসিখুশি। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজ, পরিচালক কাজী হায়ৎ, প্রযোজক মোহাম্মদ ইকবাল, সাংবাদিক ও চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্য শাবান মাহমুদসহ চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট আরও কয়েকজন।

Facebook Comments