কিভাবে বুঝবেন আপনার শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি রয়েছে?


প্রোটিনের ঘাটতি শরীরে খুব সমস্য তৈরি করে। কেননা- শরীরের বিভিন্ন কার্যক্রমের ক্ষেত্রে প্রোটিনের ভূমিকা অনেক। এটি শরীর বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। একজন নারীর (১৯ থেকে ৭০ বছর বয়স) ক্ষেত্রে দৈনিক ৪৬ গ্রাম প্রোটিন প্রয়োজন। আর একজন পুরুষের ক্ষেত্রে (১৯ থেকে ৭০ বছর বয়স) ৫৬ গ্রাম প্রোটিন প্রয়োজন। মাংস, দুধ, মাছ, ডিম, নাট বাটার, মটরশুটি ইত্যাদির মধ্যে প্রোটিন থাকে। শরীরে প্রোটিনের ঘাটতির কিছু লক্ষণের কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট টপ টেন হোম রেমেডি।

পেশির দুর্বলতা : হঠাৎ পেশির দুর্বলতা বা ব্যথা প্রোটিনের ঘাটতির অন্যতম লক্ষণ। প্রোটিন পেশির জ্বালানি। তাই শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি হলে পেশির সমস্যা হয়।

চুল পড়া : চুলের বেশিরভাগই প্রোটিন দিয়ে গঠিত। এই প্রোটিনের নাম ক্যারোটিন। শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি হলে চুল পড়ার সমস্যা হয়। তাই চুল বেশি পড়লে প্রোটিনের ঘাটতির জন্য হচ্ছে কি না খেয়াল করুন।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়া : খাদ্যতালিকায় প্রোটিনের অভাব হলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। এতে ঘন ঘন সংক্রমণ হয়; শরীর অসুস্থ হয়ে পড়ে।

ভঙ্গুর নখ : শক্ত ও স্বাস্থ্যকর নখের জন্য পর্যাপ্ত প্রোটিন অবশ্যই গ্রহণ করতে হবে। শরীরে প্রোটিনের অভাব হলে, কেবল নখ ভঙ্গুরই হয় না, সাদা সাদা দাগও পড়ে।

মস্তিষ্কে সমস্যা : প্রোটিনের অভাবে মস্তিষ্কে সমস্যা হয়। অনেক সময় মনোযোগের সমস্যা, ইচ্ছাশক্তির অভাব, শেখার ক্ষেত্রে সমস্যা ইত্যাদি প্রোটিনের ঘাটতির কারণে হয়।

ঘুমের সমস্যা : মস্তিষ্ককে ভালো রাখতে প্রোটিনের প্রয়োজন হয়। ঘুমের জন্য প্রয়োজনীয় হরমোনগুলো মস্তিষ্ক নিয়ন্ত্রণ করে। প্রোটিনের ঘাটতি হলে মস্তিষ্কের এসব কাজ ব্যাহত হয়। এটি ঘুমের সমস্যা তৈরি করে।

Facebook Comments