এবার রান্নাঘরে ২৮ গোখরা!


কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: এবার কুষ্টিয়ার মিরপুরে একটি বাড়ির রান্নাঘর থেকে মিললো ২৮টি বিষধর গোখরা সাপ। এরমধ্যে ২৭টি বাচ্চা আর একটি মা গোখরা। স্থানীয়রা বাচ্চাগুলোকে মেরে ফেলেছে, তবে মা সাপটিকে ধরে রেখেছে।

আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার সদরপুর ইউনিয়নের সদরপুর স্কুলপাড়ার নাজমুল ইসলাম লিটনের রান্নাঘর থেকে সাপের বাচ্চাগুলো মারা হয়।

বাড়ির মালিক নাজমুল ইসলাম লিটন বলেন, সকালে দুটি গোখরা সাপের বাচ্চা বাইরে দেখা যায়। এরপর রান্নাঘরের ভেরতে আরও দুটি সাপের বাচ্চা দেখা যায়। পরে রান্নাঘরের মাটি খুঁড়ে একে একে ২৭টি বাচ্চা পাওয়া যায়। পরে স্থানীয় এক সাপুড়েকে খবর দিলে তিনি এসে মাটি খুঁড়ে মা সাপটি ধরে ফেলে।

সাপুড়ে ফিরোজ বলেন, আমি আসার আগেই গোখরা সাপের ২৭টি বাচ্চা মেরে ফেলেছে স্থানীয়রা। পরে মা সাপটি আমি জীবিত অবস্থায় ধরে ফেলি। একসঙ্গে এত সাপের বাচ্চা ও মা সাপ দেখতে এলাকাবাসী ভিড় করেছে নাজমুল ইসলাম লিটনের বাড়িতে।

এরআগে গত ৬ জুলাই সন্ধ্যা থেকে ৭ জুলাই গভীর রাত পর্যন্ত রাজশাহীর তানোর সদর পৌরসভা এলাকার ভদ্রখণ্ড গ্রামে মারা হয়েছে ১২৫টি বিষধর গোখরা সাপের বাচ্চা। ওই গ্রামের কৃষক আক্কাস আলীর রান্নাঘর থেকে সাপগুলো মারা হয়।

তারও দুইদিন আগে ৪ জুলাই (মঙ্গলবার) রাত ১২টার দিকে রাজশাহী মহানগরীর বুধপাড়া এলাকার মাজদার আলীর শোয়ার ঘরে এক এক করে মারা হয় ২৭টি গোখরা সাপ। ৬ জুলাই (বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যায় ওই বাড়ির শোয়ার ঘরে ফের একটি বিষধর গোখরা সাপ মারা হয়।

Facebook Comments