ফাইল ছবি

আগামীতে দিনে দুটি করে পরীক্ষা


মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকে ভবিষ্যতে দিনে দুটি করে পরীক্ষা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এজন্য তিনি শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবককে প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানান।

আজ বৃহস্পতিবার এসএসসি পরীক্ষা শুরুর পর ধানমন্ডি গভর্নমেন্ট বয়েজ ল্যাবরেটরি স্কুল কেন্দ্র পরিদর্শনে এসে বাইরে উপস্থিত অভিভাবকদের এ কথা বলেন মন্ত্রী। এ সময় পাশে ছিলেন শিক্ষাসচিব, ঢাকা বোর্ড চেয়ারম্যান, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন কর্মকর্তা।

পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য প্রশ্ন ফাঁসের গুজব ছড়ানো হয়। প্রশ্ন ফাঁসের কোনো সুযোগ নেই। অভিভাবকদের উদ্দেশে বলেন, চিরকাল প্রশ্ন ফাঁস হয়ে আসছিল। আমরা তা বন্ধ করেছি। আপনারা আমাদের সহযোগিতা করেন। আমরা উন্নত শিক্ষায় ছেলেমেদের শিক্ষিত করতে চাই।

মন্ত্রী বলেন, একই ধরনের উত্তরপত্রে সব শিক্ষার্থী যেন সমানভাবে নম্বর পেতে পারে, সেই ব্যবস্থা করা হচ্ছে। দুই হাজার প্রধান পরীক্ষককে এ ব্যাপারে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। তারা বাকি পরীক্ষকদের এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বলবেন। বাংলাদেশ এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট ইউনিটের সহায়তায় এই ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। একই ধরনের উত্তরপত্রে একেক পরীক্ষক একেক রকম নম্বর দেন। এটি যাতে না হয়, সেজন্যই এমন ব্যবস্থা।

নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ছেলেমেয়েরা আনন্দের সঙ্গে পরীক্ষা দিচ্ছে। কোনো সমস্যা নেই। আগে আমরা দলবল নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢুকতেন। কিন্তু পরীক্ষার্থীদের অসুবিধা এড়াতে গত তিন বছর ধরে সংশ্লিষ্ট দু-একজনকে নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে গিয়েছি। এবারও তাই করেছি।

আগামীতে সব বিষয়েই সৃজনশীলে প্রশ্ন হবে কি না—একজন অভিভাবকের এমন জিজ্ঞাসায় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের জন্য সৃজনশীল একটি ভালো পদ্ধতি, এতে চিন্তা করে উত্তর লিখতে হয়, শিক্ষার্থীদের দক্ষতা বাড়ে। র্তমান জগৎটাই অন্য রকম, আপনারা নার্ভাস হবেন না। আপনাদের ছেলেমেয়েরা অনেক বেশি জানে, তারা অনেক বেশি সচেতনও।

Facebook Comments